ভাসমান পেয়ারা বাজার ঝালকাঠি

Jun 11, 2019
198 Views

স্বল্প খরচে ২ রাত ১ দিনের ট্যুরে পারেন ভাসমান পেয়ারা বাজার ঝালকাঠি।

সংক্ষেপে রুট প্লান:

ঢাকার সদরঘাট থেকে ঝালকাঠীগামী যে কোন লঞ্চ উঠে যেতে পারবেন ঝালকাঠী লঞ্চঘাট। তবে আমি পরামর্শ দিবো বরিশালগামী লঞ্চে যেতে। সদরঘাট থেকে বরিশাল গামী লঞ্চগুলো

৮ থেকে ৮.৪৫ এর মধ্যে ছেড়ে যায়। বিকেলের দিকে এসে লঞ্চ কোম্পানীর অফিস থেকে কিংবা লঞ্চের কাউন্টার থেকে কেবিন বুকিং দিতে পারবেন। অনেক সময় সকালে এসেও কেবিন পাওয়া যায় না। কেবিন দরকার হলে একদিন আগেই লঞ্চ কোম্পানী অফিসে যোগাযোগ করবেন।

আর ডেকে যেতে চাইলে সন্ধ্যার মধ্যে আসলেই হবে। বেশি দেরি করলে বিছানা চাদর বিছানোর জন্য ভালো জায়গা পাবেন না।

কেবিন নিলে সিঙ্গেল-৯০০/-, ডাবল-১৮০০/-, ডেক ভাড়া- ২০০/-।

সকালে লঞ্চ থেকে নেমেই অটোতে উঠবেন না, তাহলে ধরা খাবেন পুরাই। দেড় মিনিট হেঁটে মেইনরোডে গেলে চৌমাথা গামী অটো পাবেন। চৌমাথা থেকে স্বরূপকাঠি যাওয়ার জন্য লেগুনা পেয়ে যাবেন। স্বরূপকাঠি থেকে বেশ দরদাম করে ইঞ্জিনচালিত নৌকা ভাড়া করে নিবেন। ভাড়ার আগে অবশ্যই কোথায় কোথায় ঘুরবেন, কয়টা পর্যন্ত ঘুরবেন তা পরিষ্কার করে নিবেন। ২৫০০-৩০০০ টাকায় ইঞ্চিন চালিত নৌকা ভাড়া করলে আপনি আটঘর কুড়িয়ানা, ভিমরুলী সব ঘুরতে পারবেন।

অবশ্যই ১২টার আগে ঘুরা শেষ করবেন। এজন্য লঞ্চ থেকে নামা থেকে পরিবহনে উঠা, নাস্তা করা, কোন কিছুতেই লেট করা যাবে না। মনে রাখতে হবে, আপনার সময় ১২ ঘন্টা, এই ১২ ঘন্টার আপনাকে যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে।

নৌকা বিদায় দিয়ে ট্যুর মেম্বারদের সাথে চায়ের আড্ডায় বসে যান। পরবর্তী রুটম্যাপ করা না থাকলে সবাই কথা বলে রূট ম্যাপ করুন। আপনা হাতে অপশন দুইটা।

(১) গাবখান ব্রিজ এবং কীর্তিপাশা জমিদার বাড়ী

(২) গুঠিয়ার মসজিদ

স্বরূপকাঠী কিংবা ঝালকাঠী থেকে খুব সহজের দুই অপশনের যে কোন একট অপশনে ঘুরে আসতে পারেন। যদি ট্যুর ২ দিনের হয়, তাহলে বলো বিকেলে অপশন ১ ঘুরুন। আর পরের দিনটা অপশন ২, সেক্ষেত্রে গুটিয়া মসজিদের সাথে চাখার শেরে-বাংলা জাদুঘর, দূর্গা সাগর, লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি রাখতে পারেন।

ঘুরতে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা ফেলবেন না। মনে রাখবেন, আপনার একটু সচেতনতাই পারে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য দেশকে পরিচ্ছন্ন রাখতে।

আপনারা চাইলে গৃহত্যাগী’র ট্র্যাভেল গ্রুপের সাথে বাংলাদেশ আনাচে কানাচে ভ্রমণ দিতে পারেন।
গৃহত্যাগীর ফেসবুক গ্রুপঃ https://www.facebook.com/groups/Grihotagi/

(এছাড়াও কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করতে পারেন)

Author
  • leave a comment

    Your email address will not be published. Required fields are marked *